about school opening

 

নিশিকান্ত ভূঞ্যাঃ-  করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বেড়েই চলছে। ভারত তথা পশ্চিমবঙ্গের অবস্থা ক্রমশ ভয়াবহের দিকে এগোচ্ছে। করোনার প্রকোপ এখন গোষ্ঠী সংক্রমণে পর্যায়ে চলছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) ইতিমধ্যে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখার পরামর্শ দিয়েছে। ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রয়েছে করোনা ভাইরাসের জন্য। কারন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় চালু রেখে পঠন পাঠন চালানো কার্যত অসম্ভব।

about school opening

Advertisement

এদিকে গরীব বাড়ির ছেলে মেয়েদের পড়াশোনা এক প্রকার শিকেয় উঠেছে। কারন যেখানে গরীব বাড়ির ছেলে মেয়েদের দুবেলা অন্ন ঠিক মতো তুলে দিতে পাচ্ছে না বাবা – মা। সেখানে স্মার্ট ফোন কিনে দেওয়ার সামর্থ থাকবে বা কি করে। তাই শিক্ষার হাল যে বেহাল অবস্থা তা সহজে অনুমান করা যায়।

শিক্ষা মন্ত্রীকে স্কুল কবে খোলা হবে জিজ্ঞেস করলে তার উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “কারও প্রাণের বিনিময়ে শিক্ষা হতে পারে না। স্কুল কবে খোলা হবে, তা মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে মন্ত্রীসভা সিদ্ধান্ত নেবে।” শিক্ষামন্ত্রীর কথাতেই পরিষ্কার, এই মুহূর্তে স্কুল খোলার কোনো পরিকল্পনা নেই রাজ্যের। এমতাবস্থায় করোনা পরিস্থিতি কবে ঠিক হবে কারো জানা নেই। তাই শিক্ষার অবস্থা যে ক্রমশ নিন্মমুখী হচ্ছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

 

শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া থমকে থাকার জন্য চাকুরী প্রার্থীদের ঘাড়ে দায় চাপালেন শিক্ষামন্ত্রী???? তবে কি দায় এড়িয়ে যেতে চাইছেন ???

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.