নিশিকান্ত ভূঞ্যাঃ- করোনা আবহে রাজনীতি থেমে থাকছে না। সামনে ২০২১ এর বিধানসভার নির্বাচন। এই বিধানসভার নির্বাচনকে লক্ষ্য রেখে শাসক দল থেকে শুরু করে বিরোধী সব দল রাজনৈতিক জমি পুনরুদ্ধারে চেষ্টা করে চলেছে। বিভিন্ন ইসুতে পশ্চিমবঙ্গে শাসক দল তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের সমালোচনা করে বিরোধী সব দল রাজনৈতিক জমি পুনরুদ্ধারে চেষ্টা করছে।

Advertisement

এমতাবস্থায় বাম নেতা সুজন চক্রবর্তী তৃনমূলের দুর্নীতির রিপোর্ট চাইলেন। বাম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন,”আমফান হোক বা করোনা সংক্রমণ – সুযোগের শাসকদল। শুধু লুঠ আর তোলাবাজী। দুর্নীতির আখড়া। ভক্ষকরাই কি তদন্ত করবেন? হিসাব দেবার হিম্মত আছে মাননীয়া? তদন্তের রিপোর্ট চাই। লুঠেরা আর তোলাবাজদের তালিকা চাই। দূর্নীতির টাকা ফেরত চাই। অপরাধীদের শাস্তি চাই।”

 

শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া থমকে থাকার জন্য চাকুরী প্রার্থীদের ঘাড়ে দায় চাপালেন শিক্ষামন্ত্রী???? তবে কি দায় এড়িয়ে যেতে চাইছেন ???

 

তবে কি মাননীয়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুর্নীতিতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেবেন? দুর্নীতিতে অভিযুক্তদের তালিকা প্রকাশে আনবেন?? সময়ই এই সব প্রশ্নের উওর দেবে। তবে দেখার বিষয় বাম নেতা সুজন চক্রবর্তীর দাবি কতটা মাননীয়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মেনে নেন সেই দিকেই তাকিয়ে রয়েছে বাংলার আপামর জনতা। সামনে বিধানসভার নির্বাচনকে লক্ষ্য রেখে সিপিএম ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে বলে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল মনে করেন।

Advertisement

 

করোনা সময়কালে মানবিকতার নজির গড়লেন মহম্মদ নিয়াজুদ্দিন!!!!! মানবিকতাই জীবন মূল মন্ত্র উচিত!!!

Leave a Reply

Your email address will not be published.