The Chief Minister will give Rs 50000 to the Durga Pujo committees

নিশিকান্ত ভূঞ্যাঃ- রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বারবার বলেন যে, রাজ্যের অর্থনৈতিক অবস্থা খুবই খারাপ যার কারণে বিভিন্ন দপ্তরের কর্মী নিয়োগ আটকে রয়েছে। কিন্তু এই করোনা পরিস্থিতিতে পূজো কমিটিগুলোর ভাগ্য খুলে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আমাদের টাকা নেই সেটা ঠিক, তবে আমি জানি পূজো কমিটি গুলো খুব প্রবলেমে রয়েছে।তাই এবার রাজ্য সরকার আপনাদের ৫০ হাজার টাকা করে দেবে প্রত্যেকটা পূজো কমিটিকে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে,করোনা পরিস্থিতিতে কিছুদিন আগে পুরোহিতদের ভাতা চালু করে পুরোহিতদের ভোট কেনার চেষ্টা করছেন বলে বিরোধী দলগুলো অভিযোগ করেছিল। এবার পূজো কমিটি গুলোকে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে ভোট কেনার চেষ্টা করছেন বলে বিরোধীরা অভিযোগ করেছে।

একদিকে বেকার যুবক যুবতীরা বেকারত্বের জ্বালায় ভুগছে। প্রাইমারী থেকে শুরু করে এস এস সি, সি এস সি, গ্রামীন সম্পদ কর্মীরা, কলেজের অস্থায়ী কর্মচারীরা প্রভৃতি বিভিন্ন ক্ষেত্রে যুবক যুবতীরা বিভিন্ন দাবী নিয়ে রাস্তায় আন্দোলন করেছেন। সেই সব বিষয় গুলির সুরাহা না করে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী পুরোহিত থেকে শুরু করে পূজা কমিটি গুলোকে টাকা দান করে ভোট কেনার রাজনীতিতে ব্যস্ত বলে বিরোধীরা অভিযোগ করেছেন।

Advertisement

একজন আপার প্রাইমারি চাকুরী প্রার্থী বলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এখন ভোট কেনার রাজনীতিতে ব্যস্ত। চাকুরী প্রার্থীদের দিকে তাকানোর সময় নেই। দীর্ঘ সাত বছর ধরে আপার প্রাইমারী নিয়োগ আটকে আছে। তা সুরাহা না করে দানের মাধ্যমে ভোট কেনার মতো জঘন্য রাজনীতি করছেন।

যাইহোক পূজো কমিটি গুলো এই করোনা পরিস্থিতিতে ৫০ হাজার টাকা করে পাওয়ার ফলে তাদের পূজো করতে অনেকটাই সুবিধা হবে।

সকল খবর সবার আগে ফেসবুকে ফ্রী পেতে চাইলে আমাদের পেজ লাইক করুন। Click Here..

ওয়েস্ট বেঙ্গল রেকগনাইজ্ড আন এডেড্ মাদ্রাসা টিচার্স এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ধর্ণা ! মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখোশ খুলে দেওয়ার হুমকি ?

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published.