Modi vs Mamata

 

করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ ভয়াবহের দিকে এগোচ্ছে। যার ফলে সাধারণ মানুষ থেকে উচ্চবিত্ত প্রতিটি শ্রেণীর মানুষের মনের মধ্যে আতঙ্ক প্রবেশ করছে।এমতাবস্থায় মানুষ করোনা থেকে বাঁচতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে গিয়ে সেই দূরত্ব এখন মানসিক দূরত্বের পরিণত হচ্ছে। যাইহোক করোনা ভাইরাস হোক আর ডেঙ্গু বা জিকা ভাইরাস হোক রাজনীতি কিন্তু থেমে নেই। সামনে 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনকে( Assembly election 2021) লক্ষ্য রেখে তৃণমূল কংগ্রেস থেকে শুরু করে বিজেপি সহ অন্যান্য দলগুলো ইতিমধ্যে নির্বাচনী প্রচারে নেমে পড়েছে। তবে করোনা পরিস্থিতিতে পথে নেমে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে রাজনৈতিক কর্মসূচি কোন রাজনৈতিক দলের পক্ষে নেওয়া সম্ভব নয়। তাই তৃণমূল ও বিজেপি একে অপরের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়াতে রাজনৈতিক প্রচার চালাচ্ছে। একদিকে সোশ্যাল মিডিয়াতে তৃণমূল কংগ্রেস তার বিভিন্ন সাফল্য মানুষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে এবং কেন্দ্র সরকারের বিভিন্ন নীতির বিরুদ্ধে সমালোচনা করে নিজেদের দলকে জনমানসে গ্রহণযোগ্য করে তোলার চেষ্টা করছে।

Modi vs Mamata

Advertisement

অপরদিকে বিজেপি বর্তমান পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে প্রধান বিরোধী শক্তি হিসেবে উঠে এসেছে। কারণ গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি 18 টি সিটে জয়লাভ করেছিল। তাই 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের প্রধান প্রতিপক্ষ যে বিজেপি তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিভিন্ন জনসভা ও বিভিন্ন সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে বিজেপিকে 2021 এর বিধানসভা প্রধান প্রতিপক্ষ হিসেবে দেখছেন। তা তাঁর বিভিন্ন বক্তব্য এর মাধ্যমে বুঝিয়ে দিয়েছেন। তিনি তাঁর বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন এত সহজে পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক জমি বিজেপিকে ছেড়ে দেবেন না।

Role of Social Media in Assembly election 2021

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য ইতিমধ্যে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্য কমিটি থেকে শুরু করে জেলা কমিটির পুনর্বিন্যাস করেছেন 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনকে লক্ষ্য রেখে।

অপরপক্ষে বিজেপির পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও কোন অংশে কম নয়। তৃণমূলের সরকারের বিভিন্ন দুর্নীতি নিয়ে এবং করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের ব্যর্থতা প্রভৃতি বিষয় নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের সমালোচনার মাধ্যমে বিজেপির রাজনৈতিক জমি শক্ত করার চেষ্টা করছেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য গত লোকসভায় 18 টি আসনে বিজেপি জয়লাভ করেছিল যা তাদের কর্মী সমর্থকদের 2021 এর বিধানসভার নির্বাচনে প্রচার করার ক্ষেত্রে বাড়তি অক্সিজেন জোগাচ্ছে বলে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল মনে করেন । তাই 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন যে মমতা সরকারের কাছে খুব কঠিনতম হবে বলে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল মনে করেন।যাইহোক করোনা পরিস্থিতিতে পথ সভার মাধ্যমে রাজনৈতিক কর্মসূচী নেওয়া কার্যত সম্ভব নয় । প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, ইতিমধ্যে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব নির্দেশ দিয়েছেন যে, সোশ্যাল মিডিয়ায় আরো বেশি করে কর্মীদের অ্যাক্টিভ থাকতে হবে।অপরপক্ষে তৃণমূল কংগ্রেসও তাদের দলের কর্মী সমর্থকদের সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার কর্মসূচী নেওয়ার কথা বলেছে। যাইহোক সোশ্যাল মিডিয়াই যে 2021 এর বিধানসভার নির্বাচনের প্রচারের একমাত্র পথ হতে চলেছে বলে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহলের দাবি।

 

Advertisement

আরও পড়ুন

কলকাতা হাইকোর্টের রায়ে বিপাকে পড়তে পারে রাজ্যের প্রায় ১৪,০০০ SACT অধ্যাপক

Leave a Reply

Your email address will not be published.