Upper Primary News

 

স্কুল সার্ভিস কমিশনের (School Service Commission) বিবিধ অসঙ্গতির জন্য আপার প্রাইমারি (Upper Primary)  নিয়োগ দীর্ঘ আট বছর ঝুলে রয়েছে। যার ফলে বর্তমান উচ্চ শিক্ষিত যুবকদের মধ্যে হতাশা ক্রমশ বেড়েই চলছে। কিন্তু সরকার এই বিষয়ে নীরবতা পালন করছে। আপার প্রাইমারি চাকরি প্রার্থীদের বিভিন্ন সময়ে আন্দোলন করতে দেখা গেছে। তারা কোন কোন সময় পথে নেমে আন্দোলন করেছে।

কিন্তু বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে তারা সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন সময় তাদের দাবিগুলো জানিয়েছেন। কিন্তু মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার ও স্কুল সার্ভিস কমিশন তাদের এই বিষয়ে কোনো কর্ণপাত করেনি। এরই প্রতিবাদ কর্মসূচি হিসেবে ৯  ই আগস্ট বিশ্ব আদিবাসী দিবস উপলক্ষে আপার প্রাইমারি সংগ্রামী মঞ্চের পক্ষ থেকে ঝাড়গ্রাম শহরে রবীন্দ্র পার্কে সংলগ্ন ফুটপাতে অনির্দিষ্টকালের অবস্থান কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।

Advertisement

Upper Primary News

 

আপার প্রাইমারি সংগ্রামী মঞ্চের পক্ষে থেকে সারা হাঁসদা, রবীন্দ্রনাথ মাহালী, দয়াল শংকর সিং, প্রদীপ ওরাঁও প্রমুখ অভিযোগ করে বলেন, ট্রেন্ডহীন সংরক্ষিত শূন্যপদে প্রার্থী সংখ্যার কয়েক গুন শূন্যপদ থাকলেও নিয়োগ বিধি বর্হিভূত ভাবে আদিবাসী সহ এস সি, এসটি, ওবিসি ও প্রতিবন্ধী প্রভৃতি সমাজের প্রান্তিক অংশের আনট্রেন্ড প্রার্থীদের ইন্টারভিউ না নিয়ে নিয়োগ প্রক্রিয়া থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। ইন্টারভিউ দেওয়া সত্ত্বেও শত শত প্রার্থীকে মেধাতালিকার বাইরে রাখা হয়েছে। বহু প্রার্থীর টেট ও অ্যাকাডেমিক স্কোর ইচ্ছে খুশি বাড়ানো হয়েছে। আবেদন পত্রে নিজেকে অপ্রশিক্ষিত দাবী করা প্রার্থীকেও দেওয়া হয়েছে প্রশিক্ষনের নম্বর।

এই সংগঠনের পক্ষ নীলমনি হেম্ব্রম, পরিমল সরেন, দেবাশীষ মুদ, নীলু ওরাঁও, কিষান কিস্কু, শংকর হাঁসদা, সুনীল সিং প্রমুখ অভিযোগ করে বলেন যে, গেজেট নির্ধারিত বিষয় ক্যাটিগরী ভিত্তিক ১ঃ ১.৪ পরিবর্তে আট দশ গুন প্রার্থীকে ইন্টারভিউতে ডাকা হয়েছে। আট দশ বছর নিয়োগ না হলেও চুড়ান্ত শূন্য পদ বহু ক্ষেত্রে কমে গেছে। এমনকি নবস্থাপিত বিদ্যালয় গুলির অনুমোদিত ৫১০৮ টি শূন্যপদ ফাইনাল ভ্যাকেন্সীতে যুক্ত হয়নি। ২০১৮ তে ভেরিফিকেশনের তালিকা প্রকাশিত হয়ে গেলেও ২০১৯ এও গৃহীত হয়েছে নিয়োগের আবেদন।

 

Advertisement

আরও পড়ুন

কলকাতা হাইকোর্টের রায়ে বিপাকে পড়তে পারে রাজ্যের প্রায় ১৪,০০০ SACT অধ্যাপক

 

এই সংগঠনের পক্ষে থেকে বাবুলাল সরেন, কালীচরন মূড়া, বীরবল ওরাঁও, সুনীল হাঁসদা, গার্গী মুদী প্রমুখ বলেন , আট বছর অতিক্রান্ত হলেও আমাদের এই দূঃসহ অবস্থার প্রতিকারের জন্য সরকারের বিভিন্ন স্তরে জানানো সত্ত্বেও কেউ কর্নপাত করেনি। যোগ্য শিক্ষকের অভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণির বুনিয়াদী শিক্ষা উচ্চ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের অভাবে বন্ধ হচ্ছে বহু স্কুল। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন নিয়োগপ্রার্থী বন্ধুকে হারিয়েছি আমরা।

এই সংগঠনের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় ( ১) ইন্টারভিউ দেওয়ার পরেও নটমেরিট লিস্টেডদের, মেরিট লিস্টে এনে (২) ট্রেন্ডহীন সংরক্ষিত শূন্যপদে আনট্রেন্ডদের ইন্টারভিউ নিয়ে (৩) টেট অ্যাকাডেমিক ও প্রফেশনাল স্কোরের অসঙ্গতি মিটিয়ে (৪) বিষয় ও ক্যাটিগরী ভিত্তিক ১ঃ ১.৪ রেশিও মেনে (৫) নিউ সেটআপ স্কুলের ভেকেন্সী ও সাত বছরের শূন্যপদ যুক্ত করে, মামলা মিটিয়ে অবিলম্বে আপার প্রাইমারী নিয়োগ শুরু করতে হবে।

উপরোক্ত দাবী গুলিকে সামনে রেখে আপার প্রাইমারি সংগ্রামী মঞ্চের পক্ষ থেকে রাজ্যের বিভিন্ন জেলা পিছু নূন্যতম প্রতিনিধি নিয়ে আজ ৯ আগস্ট বিশ্ব আদিবাসী দিবসে স্কুল সার্ভিস কমিশনের বঞ্চনার প্রতিবাদের ঝাড়গ্রাম শহরের রবীন্দ্র পার্ক সংলগ্ন ফুটপাথে সামাজিক দুরত্ব ও যাবতীয় সুরক্ষা বিধি মেনে তাদের অবস্থান কর্মসূচী চলছে। এই সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে,তাদের দাবী না মেটা পর্যন্ত তারা অনির্দিষ্টকাল অবস্থান কর্মসূচী চালিয়ে যাবে। সেই পর্যন্ত আপার প্রাইমারি সংগ্রামী মঞ্চের দাবী সরকার ও কমিশন মেনে নিয়ে নিয়োগ প্রক্রিয়া অতি দ্রুত করেন কিনা তা দেখার বিষয়।

সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে যে, আজ ঝাড়গ্রামে ৯ ই আগস্ট আদিবাসী দিবস উপলক্ষে শিক্ষামন্ত্রী এসেছেন এবং এই আপার প্রাইমারী সংগ্রামী মঞ্চের সাথে কথা বলার জন্য কিছু জন সদস্যকে ডেকেছেন। এই মঞ্চের পক্ষ থেকে অর্পিতা প্রামানিক সহ তিনজন শিক্ষামন্ত্রীর সাথে দেখা করতে গিয়েছেন।

 

আরও পড়ুন

আপার প্রাইমারি মামলায় কলকাতা হাইকোর্টের গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ!

One thought on “আপার প্রাইমারি চাকুরি প্রার্থীদের জন্য খুশির খবর? সংগ্রামী মঞ্চের পক্ষ থেকে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ !”

Leave a Reply

Your email address will not be published.